এই সময়ের কবিতা

এই সময়ের বড়ো বৈশিষ্টি, প্রায় সকলেই কবিতা লিখছেন। তার একমাত্র কারণ ইনটারনেট ও সেশ্যাল মিডিয়া। কেন বলছি সকলেই কবিতা লিখছেন, বলছি এই কারণে নয় যে এর আগে সকলেই কবিতা লিখতেন না, পড়তে থাকুন “এই সময়ের কবিতা”

কবির ধর্ম

কথায় আছে, রোম নগরী যখন পুড়ছিলো সম্রাট নীরো তখন বেহালা বাজাচ্ছিলেন। অনেকেই মনে করেন কবির কাজ কবিতা লেখা। আর আবেগের স্বতস্ফূর্ত প্রকাশই কবিতা। সমাজ রাজনীতি সামাজিক আন্দোলন ইত্যাদি পড়তে থাকুন “কবির ধর্ম”

ছন্দ থেকে ছন্দপতন

বাংলা কবিতার ইতিহাসের দিকে তাকলে দেখা যাবে কবিতার সাথে ছন্দের একটি সমান্তরাল সম্পর্ক বিদ্যমান। বিশেষত আমাদের শৈশব থেকে কৈশোর হয়ে যৌবনে পৌঁছানোর পর্বে শিক্ষার্থী হিসাবে আমাদের সামনে পড়তে থাকুন “ছন্দ থেকে ছন্দপতন”

নো সমালোচনা অনলি প্রশসংসা

প্রতিদিনই প্রায় আমরা কবিতা লিখছি। বন্ধুদের পড়াচ্ছি। খুব একটা ভালোমন্দ বিচার করার বিষয়ে যে আমরা সচেতন, তেমনটা ঠিক বলা যায় না। বরং নিজের লেখার ভুয়সী প্রশংসা শুনতেই আমাদের পড়তে থাকুন “নো সমালোচনা অনলি প্রশসংসা”

প্রবন্ধ ও বাঙালিত্ব

অধিকাংশ উচ্চশিক্ষিত এবং কোন না কোন পেশাদারী অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ ব্যক্তিমানুষকেও দেখা যায়, যে কোন বিষয় নিয়েই হোক না কেন, প্রামান্য প্রবন্ধ লেখার বিষয় একান্ত অনীহা। এমনকি যে বিষয়ে তাঁর গভীর বুৎপত্তি ও বিস্তৃত জ্ঞান রয়েছে, পড়তে থাকুন “প্রবন্ধ ও বাঙালিত্ব”

ভেন্টিলেশনে বাংলা সাহিত্য

বাংলার সাহিত্য জগতে এখন একদিকে মেধাহীন পুঁজি নির্ভর ব্যবসায়িক পত্রপত্রিকার রমরমা, অন্যদিকে মধ্যমেধার সাহিত্যিকদের দৌরাত্ম্য। এর ভিতরেই ইনটারনেটের কল্কে ধরে সাহিত্যের সাথে সম্বন্ধহীন কবি যশপ্রার্থীদের বিশাল মিছিল। পড়তে থাকুন “ভেন্টিলেশনে বাংলা সাহিত্য”

সময়ের দর্পণে এসময়ের সাহিত্যচর্চা

“মানুষের ভাষা তবু অনুভূতিদেশ থেকে আলো

না পেলে নিছক ক্রিয়া; বিশেষণ; এলোমেলো নিরাশ্রয় শব্দের কঙ্কাল পড়তে থাকুন “সময়ের দর্পণে এসময়ের সাহিত্যচর্চা”