কবি তুমি কার?

কবি তুমি কার? কি মুশকিল। এও কি কোন প্রশ্ন হতে পারে? কবি অবশ্যই পাঠকের। কবির একমাত্র অস্তিত্ব তো পাঠকের হৃদয়েই হওয়ার কথা। হওয়ার কথা আর হয়ে ওঠার ভিতর পার্থক্য কি থাকে না?

পড়তে থাকুন “কবি তুমি কার?”

কবি’র কবিতা ও তার ব্যক্তিচরিত্র

কাব্য সাহিত্যের একজন একনিষ্ঠ পাঠকের কাছে, কবির কবিতাই তো শেষ কথা হওয়া উচিৎ। কবির জীবনী নিশ্চয় কবির সাহিত্য কীর্তি’র থেকে বড়ো নয়। বিশেষ করে কবি’র ব্যক্তি চরিত্র কবির কাব্য উপভোগের পথে কোন অন্তরায় হয়ে উঠতে পারে কি? পাঠক যদি জানতে পারে।

এই সময়ের কবিতা

এই সময়ের বড়ো বৈশিষ্টি, প্রায় সকলেই কবিতা লিখছেন। তার একমাত্র কারণ ইনটারনেট ও সেশ্যাল মিডিয়া। কেন বলছি সকলেই কবিতা লিখছেন, বলছি এই কারণে নয় যে এর আগে সকলেই কবিতা লিখতেন না, পড়তে থাকুন “এই সময়ের কবিতা”

কবিখ্যাতি ও কাব্যচর্চা

না, একথা স্বীকার না করে উপায় নাই, বাংল কাব্যচর্চার দিগন্তে কাব্যের থেকে খ্যাতির চর্চা অনেক বেশি। এবং সেই চর্চার দিগন্তে আজও কবির কাব্যের থেকেও কবির জনপ্রিয়তা অর্থাৎ খ্যাতিই বেশি আলোচিত হয়। পড়তে থাকুন “কবিখ্যাতি ও কাব্যচর্চা”

কবিতার বাজারদর ও কাব্যসংকলন প্রকাশচক্র

বিশেষ ঘোষণা বিশেষ ঘোষণা। সুবর্ণ সুযোগ। সুবর্ণ সুযোগ। হাজার কবির কাব্যসংকলন। আপনিও যোগ দিতে পারেন। যত খুশি কবিতা পাঠাতে পারেন। কবিতা পিছু মাত্র হাজার টাকার চেক পাঠাতে হবে। পড়তে থাকুন “কবিতার বাজারদর ও কাব্যসংকলন প্রকাশচক্র”

কবির ধর্ম

কথায় আছে, রোম নগরী যখন পুড়ছিলো সম্রাট নীরো তখন বেহালা বাজাচ্ছিলেন। অনেকেই মনে করেন কবির কাজ কবিতা লেখা। আর আবেগের স্বতস্ফূর্ত প্রকাশই কবিতা। সমাজ রাজনীতি সামাজিক আন্দোলন ইত্যাদি পড়তে থাকুন “কবির ধর্ম”

সেল্ফি ও কবিতা

সেল্ফি ও কবিতা এক অসাধারণ যুগলবন্দি। ফেসবুকের ওয়াল থেকে ওয়ালে এক নতুন ইতিহাসের সৃষ্টি হচ্ছে প্রতিদিন। সাহিত্যের ইতিহাস যখন আবার নতুন করে লেখা শুরু হবে তখন এই নিয়েই একটি সম্পূর্ণ অধ্যায় লিখতে হবে ভাবী কালের ঐতিহাসিকদের। পড়তে থাকুন “সেল্ফি ও কবিতা”