কবি’র কবিতা ও তার ব্যক্তিচরিত্র

কাব্য সাহিত্যের একজন একনিষ্ঠ পাঠকের কাছে, কবির কবিতাই তো শেষ কথা হওয়া উচিৎ। কবির জীবনী নিশ্চয় কবির সাহিত্য কীর্তি’র থেকে বড়ো নয়। বিশেষ করে কবি’র ব্যক্তি চরিত্র কবির কাব্য উপভোগের পথে কোন অন্তরায় হয়ে উঠতে পারে কি? পাঠক যদি জানতে পারে।

জামার মাপ হাতার কাট

অনেকদিন আগেই তিনি আক্ষেপ করে লিখেছিলেন, যারা অন্ধ সবচেয়ে বেশি আজ চোখে দেখে তারা। তার পর সাত দশকের বেশি সময় কেটে গিয়েছে। সমাজ রাজনীতি সর্বত্র সেই অন্ধদেরই দাপট সবচেয়ে বেশি আজ। এবং পরিব্যাপ্ত এই দাপটে, যারা এখনো দৃষ্টিশক্তি হারিয়ে ফেলেন নি। পড়তে থাকুন “জামার মাপ হাতার কাট”

কবিতার মৃত্যু

কখন মৃত্যু হয় কবিতার? ঠিক যদি এই প্রশ্নটাই করা যায়। শুধু তো একটা উত্তরই নয়। ভিড় করে অসংখ্য উত্তর। বিশেষ করে কবিতার নিবিড় পাঠে অভ্যস্থ যাঁরা। কবিতাকেই ভালোবেসে। এখানে একটা মস্ত বড়ো ফাঁক রয়ে যায় সাধারণত আমাদের অভ্যস্থ জীবনে। পড়তে থাকুন “কবিতার মৃত্যু”

কবিতা খুঁজতে যেও নাকো আর

জার্মান দার্শনিক নীৎশে মনের ঘোরে টর্চ জ্বেলে মানুষ খুঁজতেন বলে শোনা যায়। শোনা যায় বিদ্যাসাগরের ঠাকুর্দা সময় সংক্ষেপ করার জন্য কোন একদিন গ্রামে ফেরার পথ এড়িয়ে মাঠের ভিতর দিয়ে শর্টকাটে হাঁটছিলেন। পড়তে থাকুন “কবিতা খুঁজতে যেও নাকো আর”

আলোপৃথিবী

বেশ। আবারও একটা নতুন দিনের ভোর হলো। পুব দিকে অগ্রহায়ণের নরম সূর্য, আর পশ্চিমে বাকি দিনের হাতছানি। ঘুম ভাঙতেই বুঝলাম বেঁচে আছি। বালাই ষাট বেঁচে থাকবো নাই বা কেন কি আর এমন বয়স হলো? মধ্য পঞ্চাশে কারই বা হঠাৎ পড়তে থাকুন “আলোপৃথিবী”

এই সময়ের কবিতা

এই সময়ের বড়ো বৈশিষ্টি, প্রায় সকলেই কবিতা লিখছেন। তার একমাত্র কারণ ইনটারনেট ও সেশ্যাল মিডিয়া। কেন বলছি সকলেই কবিতা লিখছেন, বলছি এই কারণে নয় যে এর আগে সকলেই কবিতা লিখতেন না, পড়তে থাকুন “এই সময়ের কবিতা”

কবিতা পড়া আর না পড়া

না, খুব সত্যি করে বললে, বেশ কিছুদিন কেন অনেকদিনই হয়ে গেল, আমি বা আপনি কিনিনি কোন কবিতার নতুন বই। তা সে বিখ্যাত কোন কবিরই হোক, বা নতুন কোন কবির কবিতার বই। একটু খুঁজে দেখলে পড়তে থাকুন “কবিতা পড়া আর না পড়া”

কবিতা লেখা ও না লেখা

অনেকেই আমরা মনে করি কবিতা লেখাই সাহিত্যচর্চার সবচেয়ে সহজতম উপায়। তাই প্রায় সকলেই কবিতা লেখেন। অনেকেরই ধারণা, সাহিত্যের অন্যান্য শাখায় যতটা সময় দিতে হয়, কবিতা লেখার কাজে ততটা সময় লাগে না। পড়তে থাকুন “কবিতা লেখা ও না লেখা”

কবিতার বাজারদর ও কাব্যসংকলন প্রকাশচক্র

বিশেষ ঘোষণা বিশেষ ঘোষণা। সুবর্ণ সুযোগ। সুবর্ণ সুযোগ। হাজার কবির কাব্যসংকলন। আপনিও যোগ দিতে পারেন। যত খুশি কবিতা পাঠাতে পারেন। কবিতা পিছু মাত্র হাজার টাকার চেক পাঠাতে হবে। পড়তে থাকুন “কবিতার বাজারদর ও কাব্যসংকলন প্রকাশচক্র”

কবির ধর্ম

কথায় আছে, রোম নগরী যখন পুড়ছিলো সম্রাট নীরো তখন বেহালা বাজাচ্ছিলেন। অনেকেই মনে করেন কবির কাজ কবিতা লেখা। আর আবেগের স্বতস্ফূর্ত প্রকাশই কবিতা। সমাজ রাজনীতি সামাজিক আন্দোলন ইত্যাদি পড়তে থাকুন “কবির ধর্ম”